ফেসবুক পেজ থেকে আয় করার উপায় সম্পর্কে জেনে নিয়ে ইনকাম শুরু করুন

কিভাবে একটি ফেসবুক পেজ থেকে আয় করবেন ? জেনেনিন ফেসবুক থেকে আয় করার বিভিন্ন নতুন এবং সহজ উপায়।

বর্তমান সময়ে ফেসবুক পৃথিবীর সবথেকে জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া মাধ্যম। তবে এই ফেসবুক ব্যবহার হচ্ছে নানা কাজে কেউ এটিকে অকাজে ব্যবহার করছেন। কেউবা বিভিন্ন প্রয়োজনে ব্যবহার করছেন।

অনেকে সারাদিন হাবিজাবি পোস্ট কিংবা ছবি শেয়ার করে লাইক কমেন্টের আশায়। অপরদিকে অন্যকে চেষ্টা করছে কিভাবে ফেসবুক ব্যবহার করে অনলাইনে অর্থ উপার্জন করা যায়

জি ভাই অথবা বোন আপনি যদি চিন্তা করে থাকেন ফেসবুক কে কাজে লাগিয়ে কিভাবে অর্থ উপার্জন করবেন তাহলে এই পোষ্ট টি আপনার জন্য।

ফেসবুক থেকে অর্থ উপার্জন | ফেসবুক পেজ থেকে আয়

ফেসবুক এখন শুধুমাত্র সোশ্যাল মিডিয়া মাধ্যম নয় । ফেসবুকে হাজার হাজার মিলিয়ন মানুষ একসঙ্গে বসবাস করছে। আপনি চাইলে এই প্লাটফর্ম ফ্রিতে বিভিন্ন উপায়ে কাজে লাগিয়ে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

যেহেতু, আপনি কিভাবে ফেসবুক থেকে আয় করা যায় গুগলে সার্চ দিয়ে এই আর্টিকেলটি পেয়েছেন এবং বিপুল আগ্রহের সঙ্গে পড়াও শুরু করে দিয়েছেন। তাই অবশ্যই আপনি অসাধারণদের দলেরই কেউ একজন।

এই আর্টিকেলে আমরা সরাসরি Facebook থেকে টাকা ইনকাম করার বিষয়ে কথা বলব।

ফেসবুকের নিজস্ব কিছু সিস্টেম (যেমন: ফেসবুক মনিটাইজেশন বা In Stream Ads, Instant Article এবং Brand Collabs Manager প্রোগ্রাম) সম্পর্কে জানবো। পাশাপাশি বুদ্ধি খাটিয়ে কিভাবে ফেসবুক থেকে আয় এর পথ প্রশস্ত করা যায়, সেসব নিয়েও আলোচনা করব।

আপনি যদি কেবলমাত্র ফেসবুকের নতুন ইউজার হয়ে থাকেন তবে আপনার ফেসবুক একাউন্ট এবং ফেসবুক পেজ সম্পর্কে অবহিত হতে হবে

নয়তো ফেসবুক একাউন্ট এবং ফেসবুক পেজের মধ্যে পার্থক্যটা গুলিয়ে ফেলবেন কেননা ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে হলে আপনাকে অবশ্যই একটি ফেসবুক পেজ তৈরি করতে হবে

ফেসবুক সাধারণ একাউন্ট দিয়ে টাকা ইনকাম

এখানে ফেসবুক সাধারণ একাউন্ট বলতে বোঝানো হয়েছে আপনি যে প্রোফাইলটি ক্রিয়েট করেছেন যে প্রোফাইল নিয়ে আমার এই পোস্টটি ভিউ করতেছেন অথবা দেখতেছেন সেই প্রোফাইলের কথা বলা হয়েছে

অর্থাৎ ফেসবুক একাউন্ট তৈরী করার পর যে প্রোফাইল আপনি পান সেটি হচ্ছে সাধারন একাউন্ট এই ফেসবুক অ্যাকাউন্ট দিয়ে আপনি বিভিন্ন ধরনের অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং লিংক শেয়ারিং করে অনলাইন হতে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন

যেমন ধরুন আমরা অর্থাৎ বেস্ট ওয়েব স্কুল ডটকমের বিভিন্ন ধরনের পোস্ট অথবা অফার আপনি আপনার ফেসবুক প্রোফাইলে শেয়ার এর মাধ্যমে টাকা আর্ন করতে পারেন

আরো পড়ুন…কিভাবে একটি ব্লগের জন্য লাভজনক নিশ বা টপিক নির্বাচন করতে হয়

ফেসবুক পেজ থেকে টাকা ইনকাম করার উপায় ২০২১

আপনি যদি একজন নিয়মিত ফেসবুক ইউজার হন এবং ফেসবুকের প্রতি যদি আপনার নেশা অতিরিক্ত থাকে আর এখন যদি আপনি চিন্তা করেন ফেসবুক ব্যবহার করে আপনি অর্থ উপার্জন করবেন তবে এই পোষ্টটি অবশ্যই আপনার জন্য। নিচে ফেসবুক থেকে আয় করার উপায়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

 In Stream Ads এর মাধ্যমে ফেসবুক পেজ থেকে আয়

আপনি নিশ্চয়ই লক্ষ্য করেছেন ফেসবুকে যে কোনো ধরনের ভিডিও যখন আপনি প্লে করেন তখন মাঝখানে প্রথমে অথবা শেষের দিকে কিছু ছোট ছোট বিজ্ঞাপন চালু হয়। এসব বিজ্ঞাপনগুলোকেই In Stream Ads বলা হয়ে থাকে।

ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করার ক্ষেত্রে In Stream Ads ব্যবহার করা বেশ লাভজনক একটি উপায়।আপনি এটিও জেনে রাখেন ফেসবুকে এখন যারা ভিডিও আপলোড করতেছে না নতুন কিছু ক্রিয়েটিভ করার চেষ্টা করতেছে তাদের সকল ভিডিওগুলোর মূলে উদ্দেশ্যই হচ্ছে এই অ্যাডভার্টাইজ চালু হওয়া

 

In stream ads ব্যবহার করে ফেসবুক মনিটাইজেশন করার শর্তসমূহ

ফেসবুকে পেজ খুলে ইচ্ছেমতো ভিডিও আপলোড করা শুরু করে দিলেই আপনার ভিডিওতে ln Stream Ads প্রদর্শিত হবে না। ভিডিওতে In Stream Ads পেতে হলে ফেসবুকের কিছু শর্ত পূরণ করতে হবে। শর্তগুলো নিচে উল্লেখ করা হলো।

  • একটা ফেসবুক পেজ থাকতে হবে।
  • ফেসবুক পেজের ফলোয়ার সংখ্যা ১০,০০০ বা এর বেশি হতে হবে।
  • পেজটির ভিডিওগুলোতে বিগত ৬০ দিনে কমপক্ষে (১ মিনিটের বেশি সময় যাবৎ দেখা হয়েছে এমন) ৩০,০০০ ভিউ থাকতে হবে। যেসকল ভিডিও ৩ মিনিটের বেশি সময়ের, শুধুমাত্র সেগুলোই এক্ষেত্রে কাউন্টের মধ্যে পড়বে।

শর্তগুলো দেখে ফেসবুক পেজ থেকে আয় করা খুব কঠিন মনে হলেও প্রকৃতপক্ষে এটা কঠিন কিছু নয়। ৩০-৩৫ টা ভিডিও আগেই বানিয়ে নিয়ে সেগুলো একসাথে ফেসবুকে আপলোড করলে সবগুলো ভিডিও মিলিয়ে ২ মাসে ৩০ হাজার ভিউ পাওয়া খুব কঠিন বিষয় নয়। কেননা, ফেসবুক ব্যবহারকারীদের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে তাদের রুচি সম্পন্ন ভিডিও আপলোড করুন অবশ্যই আপনার ফেসবুক পেজ গ্র হবে

ফেসবুক In-Stream Ads প্রদর্শনের জন্য আপনার পেজটি উপযুক্ত কিনা জানার উপায়

আপনার ফেসবুক পেজ বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করার জন্য যোগ্য হয়ে উঠেছে কিনা বা আপনার ফেসবুক পেজের ভিডিওগুলোতে ফেসবুক In-Stream Ads প্রদর্শন করতে পারবেন কিনা তা জানতে প্রথমেই আপনার পার্সোনাল ফেসবুক আইডিতে লগইন করুন। তারপর এই লিংকে  ক্লিক করে “Go to creator studio” বাটনে চাপ দিন।

যদি আপনার ফেসবুক পেজ বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করে আয় করার জন্য উপযুক্ত হয়ে থাকে, তবে সেখানে সবুজ রঙে “Eligible” লেখা থাকবে। আর যদি উপযুক্ত না হয়ে থাকে, তবে লাল রঙে “Not Eligible” লেখা ভেসে উঠবে।

শর্ত পূরণের চেষ্টা করা সত্ত্বেও লাল কালিতে “Not Eligible” লেখা ভেসে উঠলে ফেসবুকের উপরোক্ত শর্তগুলো ভালোভাবে লক্ষ্য করুন এবং সেগুলোর মাঝে কোন শর্তটি পূরণ হয়নি, সেটা বোঝার চেষ্টা করুন।

যদি আপনি ফেসবুকের শর্তসমূহ পূরণ করে ফেলেন এবং এখানে “Eligible” লেখা প্রদর্শিত হয়, তবে Creator Studio থেকেই In Stream Ads চালু করা যাবে। এক্ষেত্রে ফেসবুক আপনার নির্দিষ্ট কিছু ভিডিওতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে কিংবা ম্যানুয়ালি In Stream Ads যুক্ত করতে দেবে।

জেনে রাখা ভালো, বিজ্ঞাপনের ধরণ এবং প্রদর্শন করার সময়ের ভিত্তিতে In Stream ads কে তিনভাগে ভাগ করা যায়। সেগুলো হলো:

  • Pre roll ads: ফেসবুকে কোনো ভিডিও শুরু হওয়ার ঠিক আগ মূহুর্তে যেসব বিজ্ঞাপন প্রদর্শিত হয়, সেগুলোকে বলে Pre roll ads। এ ধরণের বিজ্ঞাপন সাধারণত কম সময়ের হয়ে থাকে।
  • নতুন অবস্থায় Pre roll ads ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ, অনেক ভিউয়ার শুরুতেই বিজ্ঞাপন দেখলে মূল ভিডিও শুরু হওয়ার আগেই ধৈর্য্য হাড়িয়ে ফেলে। কিন্তু, পরবর্তীতে যখন মানুষ আপনাকে চিনবে, তখন এ ধরণের বিজ্ঞাপন ব্যবহার করলে ভিউয়ারদের ধৈর্যের বিচ্যুতি ঘটার সম্ভাবনা থাকবে না।
  • Mid-roll ads: ভিডিও চলাকালীন সময়ে যেসব বিজ্ঞাপন প্রদর্শিত হয়, সেগুলোকেই Mid roll ads বলা হয়ে থাকে। এসব বিজ্ঞাপন অনেকটাই টিভির বিজ্ঞাপনের মতো হুট করে চলে আসে।
  • Image ads: এধরনের বিজ্ঞাপন ছবিকেন্দ্রিক। এক্ষেত্রে মূল ভিডিও এর নিচে বিজ্ঞাপনের একটি ছবি বা ব্যানার প্রদর্শিত হয়। আপনি যদি আপনার ভিডিও এর শুরুতে কিংবা মাঝখানে বিজ্ঞাপন ভিডিও প্রদর্শন করতে না চান, তবে এ ধরণের ছবি ভিত্তিক ফেসবুক বিজ্ঞাপন ব্যবহার করতে পারেন।
  • আরো পড়ুন…অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সেরা ৯টি বিশ্বস্ত ওয়েবসাইট

আপনি আপনার ভিডিওতে কোন ধরণের বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করিয়ে ফেসবুক থেকে আয় করবেন, সেটা সম্পূর্ণভাবেই আপনার ব্যাপার। বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের ক্ষেত্রে স্বাধীনতার এই ব্যাপারটি ভিডিও মেকারদের অনুপ্রেরণা বাড়িয়ে দেয়।

ফেসবুক শপ | ফেসবুক পেজ থেকে আয়

অনলাইনে জিনিসপত্র বিক্রি করার জন্য Facebok Shop একটা অসাধারণ অ্যাপ। আপনার যদি ই-কমার্স স্টোর কিংবা ছোটখাট ওয়েবসাইট থাকে তাহলে আপনি এটা ব্যবহার করতে পারেন। এই অ্যাপের ফ্রি এবং পেইড ভার্সন আছে। ফ্রি ভার্সনটা লিমিটেড, তবে পেইডটা অসাধারণ।

ফেসবুকের কনটেন্ট অথবা পোস্ট বিক্রি করে আয়

ফেসবুকে আপনার পেজ তৈরি করা শেষ, শেষ কন্টেন্ট বানানোর কাজও। এবার এগোতে হবে কন্টেন্ট বা পোস্টগুলো বিক্রি করার দিকে।

শপসামথিং (shopsomething.com) নামক অনলাইন একটি ওয়েবসাইট আছে যেখানে আপনি আপনার ফেসবুক পোস্ট বিক্রি করতে পারেন।

এখানে নিজের একাউন্ট খুলে আপনার ফ্যান পেজের প্রতিটি পোস্টের জন্য নির্দিষ্ট মূল্য ধার্য করে দিতে হবে। আপনাকে নির্দিষ্ট অর্থ দিয়ে এসব পোস্ট ক্রয় করা হবে এবং পরবর্তীতে বিভিন্ন অ্যাডভারটাইজের জন্য এসব পোস্ট, পোস্টের ছবি ব্যবহার করা হবে।

মূল্য নির্ধারণের ক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে, শুরুতেই অতি চড়া মূল্যের পোস্টে কিন্তু কেউই আগ্রহ দেখাবে না। তাই মাত্রাতিরিক্ত দাম চাওয়া থেকে বিরত থাকাই শ্রেয়।

ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল চালু করে অনলাইনে আয়

আধুনিক জীবনযাত্রায় ফেসবুক অনেক দিন ধরেই অবিচ্ছেদ্য অংশ। ফেসবুক এখন শুধু সামাজিক যোগাযোগের একটি মাধ্যম নয়, দেশ-বিদেশের বিভিন্ন সংবাদেরও খোঁজ মেলে এখানে। ফেসবুকের নিউজফিডে প্রতিদিন ভেসে আসে হাজারও খবরের শিরোনাম।

এই শিরোনাম থেকে খবরটি পড়ার জন্য ক্লিক করলেই ফেসবুক থেকে বেরিয়ে চলে যেতে হয় নির্দিষ্ট কোনো ওয়েবসাইটে। আর মোবাইল ফোনের পাঠকমাত্রই জানেন, এটা কতটা সময় সাপেক্ষ! অপেক্ষার পালা যেন আর ফুরোতে চায় না।

পাঠকের এই চিরাচরিত তিক্ত অভিজ্ঞতা বদলে দিতে ফেসবুক নিয়ে এসেছে ‘ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল’ নামে এক জাদুকরি চমক। এখন খবরের শিরোনাম বা লিংকে শুধু একটা ক্লিক, ব্যস! বিদ্যুৎ গতিতে ফেসবুকেই পেয়ে যাবেন খবরটি।

আপনার ওয়েবসাইটে করা পোস্টটি যখন আপনি পেজে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল হিসেবে পোস্ট করবেন তখন সেটি পড়ার জন্য ইউজারদের এমবি খরচ করে নতুন কোনো ট্যাবে বা ব্রাউজারে যেতে হবে না। তবে হ্যাঁ, ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল শুধু স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরাই দেখতে পারবেন।

কিভাবে চালু করবেন ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল

মাত্র ৬টি ধাপ পেরিয়েই আপনার ওয়েবসাইটে ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল চালু করতে পারেন।

  1. প্রথমে https://ins tantarticles.fb.com এখানে ক্লিক করে ঝরমহ টঢ় করুন। দেখুন এখানে প্রতিটি স্টেপ ফেসবুক আপনাকে দেখিয়ে দিচ্ছে কীভাবে করতে হবে।
  2. সাইন আপ করার পর নেক্সট পেজে আপনাকে আপনার পেজ সিলেক্ট করতে বলা হবে। আপনি পেজ সিলেক্ট করবেন, ঠিক যেই পেজটি থেকে আপনি ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল সিস্টেম চালু করতে চান। আপনি ফেসবুকের যেসব শর্ত রয়েছে তার সঙ্গে একমত, এই মর্মে বক্সে টিক মার্ক করুন এবং ‘ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল টুলস’ চালু করুন।
  3. এবার আপনার সিলেক্ট করা পেজে যান। সেখান থেকে Publishing Tools এ ক্লিক করুন। ক্লিক করার পর বাম পাশে নিছে ‘ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল’ নামে নতুন অপশন দেখতে পাবেন। সেখান থেকে ‘কনফিগারেশন’ এ ক্লিক করুন।
  4. এবার ‘Authorize your site’ এ ক্লিক করুন। ৫. অথরাইজ ইউর সাইট এ ক্লিক করার পর আপনাকে নিচে নতুন একটি বক্সে নিয়ে যাবে, সেখানে আপনি আপনার ব্যক্তিগত ওয়েবসাইটের লিংক দিন। এখানে একটি বিষয় বলে রাখতে চাই, আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেসের ওয়েবসাইট হয়ে থাকে তবে আপনাকে অবশ্যই আপনার সাইটে ‘ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল’ নামে নতুন একটি ‘অ্যাড অনস’ চালু করতে হবে তারপরই ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলের জন্য লিংক সাবমিট করতে হবে।
  5. HTML ওয়েবসাইট হলে সোজা আপনার ওয়েবসাইটের লিংক বসিয়ে ক্লেম করবেন। ক্লেম করতে না পারলে আপনার সাইটের ডেভেলপারের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। ৬. আপনার ওয়েবসাইটের লিংক সঠিকভাবে ক্লেম করার পর ফেসবুক অটোমেটিক আপনার ওয়েবসাইটে করা সব পোস্ট ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলের টুলসে নিয়ে আসবে।
  6. সেখান থেকে ফেসবুক ৫টি আর্টিকেল নিজে থেকেই সিলেক্ট করে নেবে রিভিউয়ের জন্য। সঠিকভাবে আপনার পোস্ট রিভিউয়ের জন্য সাবমিট করার পর আপনাকে ২৪-৪৮ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে। সব ঠিক থাকলে আপনাকে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল আপনার পেজে প্রকাশ করার জন্য অনুমতি দেবে ফেসবুক।

সাধারণত রিভিউ রেজাল্ট ২ থেকে ৩ দিনের মধ্যে পাবেন। আপনার লেখা যদি ইউনিক হয় তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট ফেসবুক ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল হিসেবে চালু হবে। আপনার ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল একটিভ হয়ে গেলে আপনার ফেসবুক ডেভেলপার অ্যাপে গিয়ে ইনকাম কত হল তা দেখতে পারবেন।

ফেসবুক মার্কেটিং করে ফেসবুক পেজ থেকে অনলাইনে আয়

শুধুমাত্র পেজ তৈরি করে সেখানে পণ্য আপলোড করলেই হবে না সেটার জন্য আপনাকে মার্কেটিং করে কাস্টমারের কাছে পৌঁছাতে হবে। আপনি চাইলে বিভিন্ন পেজ ফেসবুক প্রোফাইল অথবা ফেসবুক গ্রুপে শেয়ার করে আপনার পণ্যের বা সার্ভিসের খুব সহজেই মার্কেটিং করতে পারেন। আপনি যত মার্কেটিং করতে পারবেন প্রচার করতে পারবেন আপনার পণ্য বা সেবা বিক্রয় হওয়ার সম্ভাবনা তত বেড়ে যাবে।

 

Leave a Comment